সর্বশেষ সংবাদ:
জগন্নাথপুরে অবৈধভাবে নদী থেকে বালি উত্তোলন, যুবলীগ নেতা সুমনের মাটি কাটার যন্ত্র জব্দ নিউইয়র্ক পুলিশের লেফটেন্যান্ট পদে পদোন্নতি পেলেন বৃহত্তর সিলেটের সন্তান সুমন সিলেটে তালিকাভুক্ত ডাকাত ‘গুল্লি কামাল’ গ্রেফতার জগন্নাথপুরে যুবকদের উদ্যোগে-প্রবাসীদের অর্থায়নে লাইটিং কাজের উদ্বোধন দোয়ারাবাজার স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন কর্তৃক পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা ‘ভারতকে মুজিববর্ষের আমন্ত্রণের তালিকা থেকে বাদ দেয়াটা অকৃতজ্ঞতা’ :কাদের ৪ দিনের সফরে সিলেট আসছেন পরিকল্পনামন্ত্রী, যোগ দেবেন যেসব কর্মসূচিতে সিলেটের প্রবাসীদের বিনিয়োগের আহ্বান এসপি ফরিদ উদ্দিন’র ৯ম তেঘরিয়া ক্রিকেট প্রিমিয়ার লীগের উদ্বোধন শেখ হাসিনার চিঠির প্রশংসায় চীনা প্রেসিডেন্ট ‘শেখ হাসিনার দলে অপরাধীরা ছাড় পায় না’ ১৭২ শিক্ষার্থী পেলেন ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ ‘হিন্দুয়োঁ কা হিন্দুস্তান’,’জয় শ্রীরাম’ স্লোগানে অগ্নিগর্ভ দিল্লি!‌ দিল্লিতে মসজিদে আগুন, মিনারে হনুমানের পতাকা সিলেটে প্রবাসী রোগির অর্ধেক অস্ত্রোপচার করে ‘ডাক্তার’ বললেন সরি! সিলেটে মুজিববর্ষের নামে ফুটপাত দখল দীর্ঘদিন পর ইনিংস ব্যবধানে টাইগারদের টেস্ট জয় চীনের বিকল্প বাজার খুঁজছে বাংলাদেশ: পরিকল্পনামন্ত্রী সুনামগঞ্জে ইভটিজিং-এর প্রতিবাদ করায় নাট্যকর্মীকে হত্যার হুমকি মুশির ডাবল, নাঈমের ঘূর্ণিতে চালকের আসনে বাংলাদেশ

সিলেটে শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক ::সিলেটের দক্ষিণ সুরমার আলোচিত শিশু নাঈম হত্যা মামলায় চারজনের ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৯ অক্টোবর) বেলা ১২টায় সিলেট জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মুহিতুল হক এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছেন- দক্ষিণ সুরমা উপজেলার পুরান তেতলী গ্রামের প্রয়াত মো. আফতাব আলীর ছেলে মো. ইসমাইল আলী (২২), একই এলাকার মো. ইছহাক মিয়া ওরফে ইছহাক আলীর ছেলে মো. মিঠুন মিয়া (২০) ও তার ভাই রুবেল (১৮), দক্ষিণ সুরমা থানার দক্ষিণ ভার্থখলা ডি ব্লকের ডিপটি ওরফে রুবেলের ছেলে বিপ্লব ওরফে বিপলু (১৮)।

Advertisement

মামলায় রায়ে নগরীর কুয়ারপাড় ভাঙ্গাটিকর এলাকার ১৫ নম্বর বাসার বাসিন্দা আবুল হোসেনের ছেলে জুনায়েদ হোসেন ওরফে জুনেদ হোসেন নামের একজন খালাস পেয়েছেন।

মামলার বাদিপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট গোলাম এহিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে করেছেন। তিনি দ্রুত এ রায় কার্যকরেরও দাবি জানান।

Advertisement

প্রসঙ্গত, বিগত ২০১১ সালের ১৪ আগস্ট তারাবির নামাজে গিয়ে অপহৃত হয় দক্ষিণ সুরমার লিটল স্টার কিন্ডার গার্টেন স্কুলের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র মোজাম্মেল হক নাঈম। এরপর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সন্দেহভাজন হিসেবে ইসমাইল ও মিঠুন নামের দুজনকে ধরে গণধোলাই দিলে তারা হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে।

পরে তাদের দেখানো মতো একটি জঙ্গল থেকে নাঈমের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশে নাঈমকে অপহরণ করা হয়েছিল। এরপর খুনিরা টাকা না পেয়ে তাকে হত্যা করে বলে জানায়।

ঘটনার ৬ দিনের মাথায় ২০১১ সালের ২০ আগস্ট নাঈমের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এর একই বছরের ২৬ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. হারুন মজুমদার পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে মামলার চার্জশিট জমা দেন।

অভিযুক্তরা হলো, দক্ষিণ সুরমার পুরাতন তেতলী গ্রামের মৃত আফতাব আলীর ছেলে ইসমাইল আলী, একই এলাকার ইসা মিয়ার ছেলে মিঠন মিয়া, দক্ষিণ ভার্থখলার রুবেল মিয়ার ছেলে বিপ্লব ওরফে বিপলু, তেতলীর ইসহাক আলীর ছেলে রুবেল ও নগরীর ভাঙ্গাটিকর কুয়ারপাড়ের স্মৃতি আবাসিক এলাকার ১৫ নম্বর বাসার আবুল কাশেমের ছেলে জুনায়েদ হোসেন জুনেদ।

এদের মধ্যে ইসমাইল ও মিঠন হত্যকান্ডের ঘটনায় আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছিলেন।

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up