সর্বশেষ সংবাদ:
১৭২ শিক্ষার্থী পেলেন ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ ‘হিন্দুয়োঁ কা হিন্দুস্তান’,’জয় শ্রীরাম’ স্লোগানে অগ্নিগর্ভ দিল্লি!‌ দিল্লিতে মসজিদে আগুন, মিনারে হনুমানের পতাকা সিলেটে প্রবাসী রোগির অর্ধেক অস্ত্রোপচার করে ‘ডাক্তার’ বললেন সরি! সিলেটে মুজিববর্ষের নামে ফুটপাত দখল দীর্ঘদিন পর ইনিংস ব্যবধানে টাইগারদের টেস্ট জয় চীনের বিকল্প বাজার খুঁজছে বাংলাদেশ: পরিকল্পনামন্ত্রী সুনামগঞ্জে ইভটিজিং-এর প্রতিবাদ করায় নাট্যকর্মীকে হত্যার হুমকি মুশির ডাবল, নাঈমের ঘূর্ণিতে চালকের আসনে বাংলাদেশ দেশের বিদ্যুৎ খাতে আরো জাপানি বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ক্যারিয়ারের তৃতীয় ডাবল হাঁকালেন মি. ডিপেন্ডেবল ৫ দিনের রিমান্ডে পাপিয়া আনোয়ার ইব্রাহিম নয়, তার স্ত্রীই হচ্ছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী! প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের পদত্যাগ কি লেখা ছিল সালমান শাহ’র সুইসাইড নোটে ‘সামিরা-শাবনূর দুইজনকে নিয়েই সংসার করতে চেয়েছিলেন সালমান’ পর্যটকদের মিলনমেলায় পরিণত তাহিরপুরের শিমুল বাগান দ্বিতীয় বিয়ে করতে এসে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী গ্রেফতার প্রভাবশালী ব্যক্তিদের অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ভিডিও ক্লিপ উদ্ধার পাপিয়ার কাছ থেকে আমরা শহরের সকল সুবিধা গ্রামে দিচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী

রেকর্ড গড়লেন সিলেটের মাহজাবীন, নাসায় চাকরি পাওয়া প্রথম বাংলাদেশী তিনি

নিজস্ব প্রতিবেদক :: যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সিলেটের মেয়ে মাহজাবীন হক। তিনি প্রথম বাংলাদশী হিসেবে নাসায় চাকরি পেয়েছেন বলে জানা গেছে। প্রথম বাংলাদেশী হয়ে নাসায় চাকরি করার অনন্য এক রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

তার এ সাফল্যে সিলেট ও যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে বাঙালি কমিউনিটির মধ্যে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে।

Advertisement

মাহজাবীন এ বছরই মিশিগান রাজ্যের ওয়েইন স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে উচ্চতর ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন।

তাদের গ্রামের বাড়ি গোলাপগঞ্জ উপজেলার কদমরসুল গ্রামে। তারা সিলেট নগরের কাজীটুলার হক ভবনের স্থায়ী বাসিন্দা।

Advertisement

পেইন্টিং ও ডিজাইনে পারদর্শী মাহজাবীন হক ২০০৯ সালে বাবা-মায়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। কর্মসূত্রে বাবা সৈয়দ এনামুল হক সিলেটে অবস্থান করলেও সঙ্গে আছেন মা ফেরদৌসী চৌধুরী ও একমাত্র ভাই সৈয়দ সামিউল হক। সৈয়দ সামিউল হক ইউএস আর্মিতে কর্মরত।

মাহজাবীন হক ওয়েইন স্টেট ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়নকালে দুই দফায় টেক্সাসের হিউস্টনে অবস্থিত নাসার জনসন স্পেস সেন্টারে ইন্টার্নশিপ করেন। প্রথম দফায় তিনি ডাটা অ্যানালিস্ট এবং দ্বিতীয় দফায় সফটওয়্যার ডেভেলপার হিসেবে মিশন কন্ট্রোলে কাজ করেন।

মাহজাবীন হক জানান, দুই দফায় আট মাস দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিভাগে কাজ করেন তিনি। এই কাজের মাধ্যমে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। নাসা অ্যামাজনসহ বিশ্বের অনেক খ্যাতনামা কোম্পানি থেকে তিনি চাকরির অফার পেয়েছেন। এর মধ্যে নাসাকেই বেছে নেন তিনি।

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up