সর্বশেষ সংবাদ:
জগন্নাথপুরে অবৈধভাবে নদী থেকে বালি উত্তোলন, যুবলীগ নেতা সুমনের মাটি কাটার যন্ত্র জব্দ নিউইয়র্ক পুলিশের লেফটেন্যান্ট পদে পদোন্নতি পেলেন বৃহত্তর সিলেটের সন্তান সুমন সিলেটে তালিকাভুক্ত ডাকাত ‘গুল্লি কামাল’ গ্রেফতার জগন্নাথপুরে যুবকদের উদ্যোগে-প্রবাসীদের অর্থায়নে লাইটিং কাজের উদ্বোধন দোয়ারাবাজার স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন কর্তৃক পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা ‘ভারতকে মুজিববর্ষের আমন্ত্রণের তালিকা থেকে বাদ দেয়াটা অকৃতজ্ঞতা’ :কাদের ৪ দিনের সফরে সিলেট আসছেন পরিকল্পনামন্ত্রী, যোগ দেবেন যেসব কর্মসূচিতে সিলেটের প্রবাসীদের বিনিয়োগের আহ্বান এসপি ফরিদ উদ্দিন’র ৯ম তেঘরিয়া ক্রিকেট প্রিমিয়ার লীগের উদ্বোধন শেখ হাসিনার চিঠির প্রশংসায় চীনা প্রেসিডেন্ট ‘শেখ হাসিনার দলে অপরাধীরা ছাড় পায় না’ ১৭২ শিক্ষার্থী পেলেন ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ ‘হিন্দুয়োঁ কা হিন্দুস্তান’,’জয় শ্রীরাম’ স্লোগানে অগ্নিগর্ভ দিল্লি!‌ দিল্লিতে মসজিদে আগুন, মিনারে হনুমানের পতাকা সিলেটে প্রবাসী রোগির অর্ধেক অস্ত্রোপচার করে ‘ডাক্তার’ বললেন সরি! সিলেটে মুজিববর্ষের নামে ফুটপাত দখল দীর্ঘদিন পর ইনিংস ব্যবধানে টাইগারদের টেস্ট জয় চীনের বিকল্প বাজার খুঁজছে বাংলাদেশ: পরিকল্পনামন্ত্রী সুনামগঞ্জে ইভটিজিং-এর প্রতিবাদ করায় নাট্যকর্মীকে হত্যার হুমকি মুশির ডাবল, নাঈমের ঘূর্ণিতে চালকের আসনে বাংলাদেশ

৩৯ বউ, ৯৪ সন্তান নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম পরিবার ভারতীয়র; ৪০ মুরগি লাগে প্রতি বেলায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ১৯৪৫ সালে বাংলাদেশ লাগোয়া মিজোরামের এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম জিওনার। মাত্র ১৭ বছর বয়সে প্রথমবার বিয়ে করেন তিনি।

আর সব সাধারণ মানুষের মতো একটি বিয়ে করে সন্তুষ্ট থাকতে চাননি। জিওনা এরপর একের পর এক বিয়ে করেছেন। একপর্যায়ে ৩৯ জন নারীকে বিয়ে করেন তিনি। এতো জন স্ত্রী বিশ্বে আর কারো নেই। তিনি এক বছরে সর্বাধিক দশটি বিয়ে করার রেকর্ডও গড়েছেন। আর সব স্ত্রীই তার সঙ্গে থাকেন।

Advertisement

গত ১৩ মার্চে লন্ডন ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে প্রকাশিত এক সংবাদে জানা যায়, পৃথিবীর সব থেকে বড় পরিবার প্রধান হলেন জিওনা চানা। তার ৩৯ জন স্ত্রী রয়েছেন। এছাড়াও ৯৪ জন সন্তান, ১৪ জন পুত্রবধূ এবং ৩৩ জন নাতি-নাতনি রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, মিজোরামের বাসিন্দা জিওনার বাড়িটিও সংসারের মতোই বড়। ১০০ ঘরের বাড়িতে সবাইকে এক সঙ্গে নিয়ে বাস করেন তিনি। সব স্ত্রীর ঘরই তার ঘরের পাশেপাশে। বিয়ের দিন অনুযায়ী তারা দূরে বা কাছে থাকেন। অর্থাৎ, প্রথম স্ত্রী থাকে সবচেয়ে দূরে আর শেষ বিবাহ করা স্ত্রী জিওনার ঘরের একদম পাশে। তবে সবারই জিওনার ঘরে ঢোকার অনুমতি আছে।

Advertisement
জিওনার পরিবারের প্রতিদিন একশ কেজি চাল আর ৭০ কেজির বেশি আলু রান্না করা হয়। আর যেদিন মাংস হয় সেদিন তো ৬০ কেজি আলু আর ৪০টিরও বেশি মুরগি লাগে। জিওনার ছেলেরা সবাই চাষের কাজ ও পশুপালন করায় পরিবারে খাদ্যের অভাব নেই মোটেও।

জিওনা এখানে থামতে চাননি। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবারের কর্তা হতে পেরে গর্বিত। আমি আরো বাড়াতে চাই এই পরিবার। আমার দেখভাল করার জন্য এখন অনেকেই রয়েছে। এটাই পরম শান্তির।

এদিকে পরিবারের সদস্যদের জন্য আলাদা স্কুলও বানিয়েছেন জিওনা। সেখানে তার ছেলে-মেয়ে এবং নাতি-নাতিনিরা পড়াশোনা করেছে কিংবা করে। সেই স্কুলটি সরকারের কিছু অনুদানও পায়।

 

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up