সর্বশেষ সংবাদ:
৭ম সানরাইজ প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়ন রয়েল চ্যালেন্জার্স খালিশাহ্ বাড়ি মানবতার সেবায় কাজ করতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী সিলেটে নিজের এক বছরের উন্নয়নকাজের ফিরিস্তি দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট নগরীর অপরিচ্ছন্ন রাস্তাঘাটের জন্য আরিফকে দায়ী করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১৬ দিনে সৌদি থেকে খালি হাতে ফিরলেন দেড় হাজার প্রবাসী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শনিবার মাঠে নামবে বাংলাদেশ ইজতেমায় ৩ মুসল্লির মৃত্যু আমাদের আর কোন অভাব নেই, নো রিলিফ : পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুরের মেয়র মনাফের মরদেহে পরিকল্পনামন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন নিজেদের মেয়ে ব্রিটিশ এমপি আপসানাকে ইনাতনগর প্রবাসীদের সংবর্ধনা ভারতের বিপক্ষে টাইগ্রিসদের বড় জয় সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ফয়েজ, সেলিম সম্পাদক নির্বাচিত ‘বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরবো, বাংলাদেশের অর্থনীতি আর দরিদ্র নয়’ ইসি চাইলে ভোটের তারিখ পেছাতে পারে: কাদের ইরানের ক্ষেপনাস্ত্র হামলায় ১১ মার্কিন সেনার মস্তিষ্ক বিকল পর্ন সাইটে নাম, সাইবার ক্রাইম সেলে নাতাশার অভিযোগ বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্ব শুরু, বৃহৎ জুমার নামাজ আদায় হবে আজ বিশেষ বিমানে ৩১ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠালো যুক্তরাষ্ট্র সুনামগঞ্জের ইয়াসির গ্রামীণফোনের প্রথম বাংলাদেশি সিইও তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা পুতিনের

৩৯ বউ, ৯৪ সন্তান নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম পরিবার ভারতীয়র; ৪০ মুরগি লাগে প্রতি বেলায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ১৯৪৫ সালে বাংলাদেশ লাগোয়া মিজোরামের এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম জিওনার। মাত্র ১৭ বছর বয়সে প্রথমবার বিয়ে করেন তিনি।

আর সব সাধারণ মানুষের মতো একটি বিয়ে করে সন্তুষ্ট থাকতে চাননি। জিওনা এরপর একের পর এক বিয়ে করেছেন। একপর্যায়ে ৩৯ জন নারীকে বিয়ে করেন তিনি। এতো জন স্ত্রী বিশ্বে আর কারো নেই। তিনি এক বছরে সর্বাধিক দশটি বিয়ে করার রেকর্ডও গড়েছেন। আর সব স্ত্রীই তার সঙ্গে থাকেন।

Advertisement

গত ১৩ মার্চে লন্ডন ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে প্রকাশিত এক সংবাদে জানা যায়, পৃথিবীর সব থেকে বড় পরিবার প্রধান হলেন জিওনা চানা। তার ৩৯ জন স্ত্রী রয়েছেন। এছাড়াও ৯৪ জন সন্তান, ১৪ জন পুত্রবধূ এবং ৩৩ জন নাতি-নাতনি রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, মিজোরামের বাসিন্দা জিওনার বাড়িটিও সংসারের মতোই বড়। ১০০ ঘরের বাড়িতে সবাইকে এক সঙ্গে নিয়ে বাস করেন তিনি। সব স্ত্রীর ঘরই তার ঘরের পাশেপাশে। বিয়ের দিন অনুযায়ী তারা দূরে বা কাছে থাকেন। অর্থাৎ, প্রথম স্ত্রী থাকে সবচেয়ে দূরে আর শেষ বিবাহ করা স্ত্রী জিওনার ঘরের একদম পাশে। তবে সবারই জিওনার ঘরে ঢোকার অনুমতি আছে।

Advertisement
জিওনার পরিবারের প্রতিদিন একশ কেজি চাল আর ৭০ কেজির বেশি আলু রান্না করা হয়। আর যেদিন মাংস হয় সেদিন তো ৬০ কেজি আলু আর ৪০টিরও বেশি মুরগি লাগে। জিওনার ছেলেরা সবাই চাষের কাজ ও পশুপালন করায় পরিবারে খাদ্যের অভাব নেই মোটেও।

জিওনা এখানে থামতে চাননি। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবারের কর্তা হতে পেরে গর্বিত। আমি আরো বাড়াতে চাই এই পরিবার। আমার দেখভাল করার জন্য এখন অনেকেই রয়েছে। এটাই পরম শান্তির।

এদিকে পরিবারের সদস্যদের জন্য আলাদা স্কুলও বানিয়েছেন জিওনা। সেখানে তার ছেলে-মেয়ে এবং নাতি-নাতিনিরা পড়াশোনা করেছে কিংবা করে। সেই স্কুলটি সরকারের কিছু অনুদানও পায়।

 

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up