মিরপুর ইউপি নির্বাচন : নৌকা চান ৭ আ.লীগ নেতা, নিজের নাম ঘোষণা দিলেন দোয়েল

মো. জাকারিয়া আহমদ :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের বহুল প্রতিক্ষীত নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা হয়েছে মঙ্গলবার। তফশিল ঘোষণা হলে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজেদের প্রার্থিতা ঘোষণা দিয়েছেন। এ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী না দিলেও প্রার্থী দেবে আওয়ামী লীগ। সংগঠনটি প্রার্থী বাচাইয়ের জন্য বৃহস্পতিবার এ বর্ধিত সভা ডাকে। বর্ধিত সভায় সাত আওয়ামী লীগ নেতার নাম প্রস্তাব করা হয়। তাঁরা মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করতে চান। তবে বর্ধিত সভা দোয়েল নামের এক সাবেক ছাত্রনেতা নিজের প্রার্থিতা নিজেই ঘোষণা দেন।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মিরপর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে এ বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হয়।

মিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জমির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি প্রবীন রাজনীতিবিদ সিদ্দিক আহমদ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, সহসভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মশাহিদ, যুগ্ম সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন মাষ্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সুত্রধর বীরেন্দ্র, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল ইসলাম, মিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির, যুগ্ম সম্পাদক বাবুল মিয়া, যুবলীগ নেতা সাদেকুর রহমান সাদসহ ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়াম ীলীগের নেতাকর্মীরা।

পরে নির্বাচনে দলের প্রার্থী খুঁজতে ডাকা হলে, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মশাহিদ, যুগ্ম সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন মাষ্টার, কোষাধ্যক্ষ মাহবুবুল হক শেরিন, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ইলিয়াস আহমদ, মিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মিরপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জমির উদ্দিন ও যুগ্ম সম্পাদক বাবুল মিয়া। সভায় অন্য প্রার্থীদের পক্ষে নাম প্রস্তাব বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা ঘোষণা করলে সেখানে নিজের প্রার্থিতা নিজেই ঘোষণা দেন মিডিয়া কর্মী মঞ্জুরুল আলম দোয়েল।

এবিষয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজুর মন্তব্য জানতে একাধিকবার মুঠোফোনে কল করা হলেও তারা ফোন রিসিভ করেন নি।

তবে স্থানীয় একটি মিডিয়ায় জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ’র সভাপতি আকমল হোসেন বলেছেন, তৃর্নমূল নেতাকর্মীরা সাতজন প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করেছেন। এরমধ্যে জনমত ও যোগ্যতা যাচাই-বাছাই করে সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির নিকট তিনজন প্রার্থীর নাম প্রেরণ করা হতে পারে।

উল্লেখ্য, মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর, বাছাই ১৫ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২২ সেপ্টেম্বর এবং ভোটগ্রহণ ১৪ অক্টোবর। ২০০৩ সালে সর্বশেষ মিরপুর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এতোদিন ভারপ্রাপ্ত দিয়ে চলছিল এ পরিষদের কার্যক্রম।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন 👎👎👎

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇